চীনে ঘূর্ণিঝড়ের তাণ্ডবে মাঝ সমুদ্রে দুই টুকরো হলো জাহাজ, নিখোঁজ ২৭

post_image

ছবি: সংগৃহীত

চীনে আঘাত হেনেছে বছরের প্রথম ঘূর্ণিঝড় ‘চাবা’। এর প্রভাবে দেশটির দক্ষিণ উপকূলে ঝোড়ো হাওয়ার সঙ্গে ভারী বৃষ্টি হচ্ছে। স্থানীয় আবহাওয়াবিদেরা সতর্ক করে বলেছেন, দেশটিতে রেকর্ড পরিমাণ বৃষ্টি হতে পারে। দেশটির সবচেয়ে জনবহুল প্রদেশ গুয়ানদং ছাড়া একাধিক প্রদেশে প্রাকৃতিক বিপর্যয়ের উচ্চঝুঁকি নিয়েও সতর্ক করেছেন তারা।

শনিবার (২ জুন) বিকেলে গুয়ানদংয়ের মাওমিং শহরের উপকূলে আঘাত হানে ঘূর্ণিঝড় চাবা। উপকূলে আছড়ে পড়ার সময় এর গতি ছিল ঘণ্টায় ১৫ থেকে ২০ কিলোমিটার। চীনের জাতীয় আবহাওয়া কেন্দ্র (এনএমসি) এক বিবৃতিতে এসব তথ্য জানিয়েছে।

মাঝারি মাত্রার ঘূর্ণিঝড় চাবা উপকূলে আছড়ে পড়ার পর গতি হারাচ্ছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। তবে ঝড়ের প্রভাবে ভারী বৃষ্টি হতে পারে। বলা হচ্ছে, ঝড়ের ফলে যে বৃষ্টিপাত হবে, তা ওই অঞ্চলে বর্ষা মৌসুমে সাধারণত যত বৃষ্টি হয়, তার রেকর্ড ভাঙবে। এসব তথ্য জানিয়েছেন এনএমসির প্রধান আবহাওয়াবিদ গাও শুয়ানঝু।

শনিবার ঝড়ের সময় দক্ষিণ চীন সাগরে ৩০ আরোহী নিয়ে একটি প্রকৌশল জাহাজ দ্বিখণ্ডিত হয়েছে বলে জানিয়েছেন সরকারি কর্মকর্তারা। এর মধ্যে তিন ক্রু সদস্যকে উদ্ধার করা হয়েছে। হংকং থেকে প্রায় ৩০০ কিলোমিটার দূরে নিখোঁজ অন্য ক্রু সদস্যদের অবস্থান শনাক্তে উদ্ধার কার্যক্রম চালানো হচ্ছে।

স্থানীয় সময় বেলা তিনটার দিকে তিন ক্রু সদস্যকে জীবিত উদ্ধার করা হয়। তাদের হাসপাতালে ভর্তি করার কথা জানিয়েছে হংকংয়ের সরকারি ফ্লাইং সার্ভিস।

হংকংয়ের সরকারি কর্তৃপক্ষ কিছু ভিডিও ফুটেজ প্রকাশ করেছে। তাতে দেখা যায়, এক ব্যক্তিকে হেলিকপ্টারে উদ্ধার করা হচ্ছে। এ সময় সমুদ্রের বিশাল স্রোত জাহাজের ওপর আছড়ে পড়ছে। দ্বিখণ্ডিত নৌযান অর্ধেক ডুবে গেছে। সরকার বলছে, হেলিকপ্টার যাওয়ার আগেই বাকি ক্রু সদস্যরা ঢেউয়ের তোড়ে ভেসে গেছে।

গত বৃহস্পতিবার চীনের আধা স্বায়ত্তশাসিত অঞ্চল হংকংয়ে যান চীনের প্রেসিডেন্ট সি চিন পিং। সেদিনই ঘূর্ণিঝড়ের সতর্কতা জারি করেছিল হংকং কর্তৃপক্ষ।

সূত্র: দ্য গার্ডিয়ান

সকল খবর

সকল খবর পড়ুন